ইতিহাসনামায় আপনাকে স্বাগতম




আপনি চাইলে ইমেইল বা আমাদের ফেসবুক পেজেও আপনার মূল্যবান লেখাটি পাঠাতে পারেন।
ইমেইল বা ফেসবুকে লেখা পাঠাতে নিম্ন উল্লিখিত নিয়মাবলী অনুসরণ করুন।


আপনার নিজের টাইপ করা লেখাটি আমাদের ইমেইল ঠিকানায় অথবা ফেসবুক ইনবক্সে পাঠিয়ে দিন।

ইমেইল: আমাদের ইমেইল লিঙ্ক (etihashnama@gmail.com)

ফেসবুক পেজ: আমাদের ফেসবুক পেজ লিংক

লেখার সাথে প্রয়োজনীয় ছবি ও লিংক সংযুক্ত করে দিন। এবং ছবি ও লিংক কোথায় সংযুক্ত হবে উল্লেখ করুন। বোল্ড, প্যারা, ইত্যাদিও স্পষ্ট করে উল্লেখ করুন।


আমাদের সাইটে বেনামে  (anonymously) লেখা প্রকাশ সম্ভব নয়। সুতরাং লেখার শেষে অবশ্যই লেখকের সাথে যোগাযোগ সম্ভব এমন লিংক বা ঠিকানা উল্লেখ করতে হবে।
ইতিহাসনামায় লেখা প্রকাশের সময়, ২ লাইনে লেখককে নিজের ব্যাপারে লিখতে হবে।
কয়েকটি উদাহরণ:-

+লেখক: রিয়াসাত মোর্শেদ খান,
পড়ছেন নৌযন্ত্রকৌশলে।শহুরে সন্ধ্যায় বন্দরে রুমাল নেড়ে জাহাজ তাড়ানোর দায়িত্ব নেয়ার পাশাপাশি ইতিউতি খুঁজে ফিরছেন মানে, রূপক, সম্পর্কশাস্ত্র এবং ইত্যাদি ইত্যাদি!  

+লেখক: আসাদুজ্জামান খান জিসান
ইতিহাসনামা.কম এর ৩ জন সহ-প্রতিষ্ঠাতার একজন। হাইবারনেশনে থাকা ভাল্লুকদের প্রতি অসীম ঈর্ষা রয়েছে তার।


মূলত, লেখার শেষে যোগাযোগের জন্য, যেকোন সামাজিক মাধ্যমের আইডি লিংক ব্যবহার করতে লেখকদের উৎসাহিত করা হয়।  




পরিশেষে লেখা জমা দেওয়ার সময় অনুসারে, আপনার লেখাটি কখন প্রকাশিত হবে তা নির্ধারণ করেন ইতিহাসনামা.কম এর সম্মানিত সম্পাদকবৃন্দ।  


সতর্কতা:
বাংলাদেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব অথবা সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় যেকোন ঐক্যকে নেতিবাচক ভাবে প্রভাবিত করতে পারে; এমন লেখা বা তথ্য আমাদের সাইটে প্রকাশ করা সম্ভব হবে না। তাছাড়া, এমন যেকোন লেখা যা ইতিহাসনামা.কম এর কর্ম পরিবেশকে  ঝুঁকিতে ফেলতে পারে বা বাধাগ্রস্থ করতে পারে, তা আমরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে প্রত্যাখান করবো। এক্ষেত্রে সকলের বিচক্ষণতা এবং সহযোগিতা কামনা করা হচ্ছে।