ইতিহাসনামায় আপনাকে স্বাগতম

রাখাল বালক - লিখেছেন - ইউসুফ হাসান



রাখাল বালক বলছি আমি,
গরিব ঘরের ছেলে।
দুঃখ আমার পেয়ে যায়,
বাশি না পেলে।
আমার পাশে ছন্দ শুনে,
অনেক লোকের ঠাই।
তোমার কাছে আমি মানে,
মনের পোড়া ছাই।
গাছের ছায়ায় বসে আমি,
মধুর ছন্দ বাজাই।
জোসনা রাতের চাঁদটা দেখতে,
মনটা জুড়ে চাই।
বাঁশি হাতে নিয়ে আমি,
বসে থাকি বেলা।
আমার বন্ধু চাষার ছেলে,
পরে অনেক খেলা।
হাঁটতে হাঁটতে একটা করে,
দিন কেটে যায়।
দিনের শেষে তোমার ছবি,
মনে জায়গা পায়।
আমার চোখের স্পর্শ জোড়া,
অচিন দেশে বাস।
তোমায় আমি দেখতে গিয়ে,
গাছের নিচে বাস।
ধান খেতে ধানের শিষে,
সোনার ফসল চাষী।
সূর্যমূখীর সূর্য লাগে,
তোমার মুখের হাসি।
মায়ের কথা মনে পড়ে,
মায়ের মুখ ধরন।
মায়ের কাছে গেলে পরে,
পান্তা  ভাতে বরন।
তুমি চলে ওই পথে,
তোমায় আমি দেখি।
জমিদারের মেয়ে তুমি,
তুমি লাজুক নারী।

 

ইউসুফ হাসান আদিত্য
অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া ইউসুফ হাসান আদিত্য ঝামেলা পাকাতে উস্তাদ। আবিষ্কার আর বিজ্ঞানের মৌলিক বিষয়গুলোতে তার রয়েছে অসীম আগ্রহ।