ইতিহাসনামায় আপনাকে স্বাগতম

স্বাধীনতা - লিখেছেন - ইউসুফ হাসান



স্বাধীনতা মানে খোলা আকাশে,
উড়ন্ত কোন মেঘে সারি
স্বাধীনতা মানে ইচ্ছেমতো,
চলার কোনো এক শক্তি।
স্বাধীনতা মানে কোন মাঠে,
বাধাহীনভাবে ছুটে চলা
স্বাধীনতা মানে মনের কথা,
চিৎকার করে বলতে পারা।
স্বাধীনতা মানে সত্য বলার,
হার না মানা সেই অধিকার।
স্বাধীনতা মানে আমার সেই,
হারিয়ে যাওয়া পুরনো অধিকার।
স্বাধীনতা মানে স্বপ্ন দেখা,
নতুন সেই এক ভোর।
স্বাধীনতা মানে লাল-সবজের,
ভালো কোনো এক সুখবর।
স্বাধীনতা মানে সত্য বলার,
বড় কোন এক সাহস।
স্বাধীনতা মানে দিতে হবে না,
বাঙালির রক্ত লাল স্রোত।
স্বাধীনতা মানে নিজের স্বপ্ন,
পূরণেরও অধিক এক ইচ্ছা।
স্বাধীনতা মানে শহীদদের শ্রদ্ধা,
ফুল দেয়ার বাধাহীন এক ইচ্ছা।
স্বাধীনতা মানে শহীদের রক্তে,
লেখা সেই মহান ইতিহাস।
স্বাধীনতা মানে বঙ্গবন্ধুর ভাষণে,
রক্তে আগুন জ্বালা সেই নিঃশ্বাস।
স্বাধীনতা মানে মানুষের মুখে,
চির স্বাধীনতার জয় গানটা।
স্বাধীনতা মানে কেটে যাওয়া,
অতীতের কিছু দুঃখের দিনটা।
স্বাধীনতা মানে উড়ে যাওয়া,
পাখিগুলো ডানা ঝাপটানোই উদাহরণ।
স্বাধীনতা মানে বালকের মনে,
জন্ম নেওয়া নতুন সেই কারণ।
স্বাধীনতা মানে মাঠে থাকে,
শিশুদের দিয়ে পরিপূর্ণ।
স্বাধীনতা মানে রাস্তা থাকে না,
জনগণ ছাড়া জনশূন্য।
স্বাধীনতা মানে নদীতে থাকে,
মাঝির বাওয়া বৈঠার শব্দ।
স্বাধীনতা মানে গাছের নিচে,
রাখাল বালকের বাঁশির ছন্দ।
স্বাধীনতা মানে আমার ইচ্ছায়,
বাংলা লিখি বাংলা বলি।
স্বাধীনতা মানে এই খাতায়,
লেখা প্রতিবাদে শেষ কালি।
স্বাধীনতা মানে আমরা স্বাধীন,
লাখো শহীদের প্রান দিয়ে।
স্বাধীনতা মানে আনন্দ আমার,
মাতৃভাষায় বলতে পেরে।
স্বাধীনতা মানে শুনতে হবে না,
গুলির শব্দে চিৎকারের হাহাকারটা।
স্বাধীনতা মানে দেখতে হবে না,
রক্তে ভেজা লাল রাস্তাটা।
স্বাধীনতা মানে স্বাধীন বাতাসে,
প্রাণখোলা পাখির গান।
স্বাধীনতা মানে আমার লেখা,
প্রাণহীন কোন প্রাণ।
স্বাধীনতা মানে খোলা আকাশের নিচে,
দু হাত ছড়িয়ে বৃষ্টিতে ভেজা।
স্বাধীনতা মানে সেই বৃষ্টিতেই,
বৃষ্টি ভেজা গান গাওয়া।


 

ইউসুফ হাসান আদিত্য
অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া ইউসুফ হাসান আদিত্য ঝামেলা পাকাতে উস্তাদ। আবিষ্কার আর বিজ্ঞানের মৌলিক বিষয়গুলোতে তার রয়েছে অসীম আগ্রহ।