ইতিহাসনামায় আপনাকে স্বাগতম

প্রতিবাদ - লিখেছেন - তামিম আল শাহরিয়ার


হ্যাঁ করব আমরা প্রতিবাদ
থাকবা না আর নির্বাক
দাড়াঁব অন্যায়ের বিরুদ্ধে
করব প্রতিবাদ সবে মিলে।

প্রতিবাদ করতে থাকতে হবে একতাবদ্ধ
হতে হবে সংকল্পবদ্ধ
করতে হবে পরিকল্পনা
মনের মধ্যে আকোঁ প্রতিবাদের আল্পনা।

হে মানব,
করো অন্যায়ের প্রতিবাদ
থেকো না আর নির্বাক
ছড়িয়ো না আর মিথ্যে বাক
করো না অন্যদের

হে কাপুরষ
যদি অংশ না নাও প্রতিবাদে
লুকিয়ে থেকো ঘরের অন্তরালে
আটকে থেকো বদ্ধ পিঞ্জরে।।

জানাই প্রতিবাদ সেইসব লোকদের
ঠান্ডা মাথায় করে চুরি কাঙ্গালের ধন,
এক কলমের খোচায় ধ্বংস করে
লক্ষ লোকের আবাসন।

হে বিচারপতি,সমাজপতি,প্রতিনিধি
আশ্বাস দিয়ে করো না গরিবের অন্ন চুরি
ক্ষমতার বলে কলমের খোচায়
আত্মসাৎ করো না অন্যের সম্পদ ভুরি ভুরি।

হে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ,
নিয়ো না কারো থেকে উৎকোচ
করো না কারো প্রতি অন্যায়
সৎভাবে যা পাও থেকো তুষ্ট তাই নিয়ে
বাড়িও না সম্পদ অসৎ পন্থা বেঁছে নিয়ে।

কি হবে এতো সম্পদ দিয়ে
যদি কাল চলে যায় তোমার ফুসফুস
পোকামাকড়ের দখলে
যাবে কি সাথে তোমার সেই সম্পদ
তোমার ঐ অন্ধকার ঘরে।।

তীব্র নিন্দা জানাই সেইসব লোকদের
যারা অধিকার হরণ করে ভোক্তাদের,
হয়েছে যারা রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ
মনে হয় যেন দেই তাদের গলায় ফাঁস।

ওহে পাপীবান্দারা,
করে তুলেছো গরিবদের নাভিশ্বাস
করছো আমোদ  করছো উচ্ছাস।

হে বিবেকহীন,
দেশটাকে দিয়েছ ভিক্ষুক অসহায় ভরে
সম্পদ আত্মসাৎ করে ঘুরছো গাড়ি করে,
নিজের কথা ভেবে লাথি মারছো গরিবের পেটে
আর নিজে বসে আছো আরাম করে গদিতে।

আবারও বলি,
কি করবে তুমি এত সম্পদ দিয়ে?
সেই একদিন তো চলে যাবে সাদা কাফন পরে,
যাবে সেদিন খালি হাতে অন্ধকার ঘরে
যেমনটি যায় রাস্তার ফকির স্রষ্টার তরে।

এরপরও কি তোমার বিবেক কাজ করে না?
তোমার অন্তর কি এখনো কাঁদেনা?
তোমার মন কি এখনো মুক্ত হয়না?

একবারও কি তুমি অনুতপ্ত হওনি?
অন্যায় করেছো,করেছো মানুষদের হয়রানি।

তোমার মধ্যে নেই কোনো মানবিকতা
নেই কোনো বিবেক,
তবে প্রশ্ন করি কেনো জন্ম নিলে মানুষ হয়ে?
বনের হিংস্র পশু হয়ে কেনো নয়?



 

তামিম আল শাহরিয়ার ি
মতিঝিল সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় " এর নবম শ্রেণির বিভাগে অধ্যয়নরত একজন ছাত্র। মাঝে মাঝে টুকটাক লেখালেখি করা হয়।