ইতিহাসনামায় আপনাকে স্বাগতম

সংঘাত - লিখেছেন - বিভা পোদ্দার



 লুকিয়ে আছেন কেন?
- তুমিও তো লুকিয়ে আছ!
: এই নির্বাসন আমার প্রাপ্য...
- যদি বলি আমারো প্রাপ্য?
: মানতে পারছি না ঠিক
- কেন? আমি কি পাথর?
: তার চেয়ে কমও তো নন...  কারণটা কী?
- দেখে বিশ্বাস হয় নি বুঝি?
: না, পাথরেও তো ফুল ফোটে! সেখানে আপনি তো মানুষ...
- কিন্তু আমি তো
: নির্লিপ্ত, তাই তো? নির্লিপ্ত যেমন দেবতা হয়, তেমনি পশুও হয়!
- এতটা নিচেও নামিনি
: জানি তো!
- আমি এত নীচ নই
: নির্বাসন কবে শেষ হবে?
- নির্বাসন শেষ করতে চাই না! এভাবেই ঢের ভালো আছি!  
: কীসের অভাব আপনার?  
- কোনোকিছুরই আর কোনো অর্থ নেই এখন!  
: সবকিছু থেকেও কিছু নেই!  
- তেমনই বলা চলে! তোমার মত হতে পারি না যে!
: আমার সময় লাগবে অনেক! এত রেখে আমার মত কেউ কেন হতে চাইবে?
- তুমি কি সুন্দর হেরে গিয়ে জিতে গেছ! তোমায় শ্রদ্ধা করতে ইচ্ছে হয়!  
: আমার পাপের বোঝা বাড়াবেন না! এত ভার টানতে পারি না!
- তোমার কথা শুনে মনে হচ্ছে তুমি কোন পাপ করেছ!!
: এটাকে পাপ বলেন না আপনি? তবে কোনটা পাপ?আপনার কাছে কি সবকিছুর সংজ্ঞাই আলাদা! আমার আত্মসম্মানে লাগে!
- আমিই বোধহয় পাপী
: না, আপনি কিছুই করেন নি! সিদ্ধান্ত নেবার পূর্নাঙ্গ  অধিকার আপনার আছে।
- আমি তো কোনো উত্তর দিই নি
: আমি কোনো উত্তর চাই নি
- লুকিয়ে আছো কেন?
: ভীরু বলে
- এটা সত্যি নয়
: সত্যি বড় আপেক্ষিক! ধরে নিলেই সত্যি।
- কী চাও তুমি?
: কিছুই না- আমাকে দোষ দিতে পারো অন্তত, ভাল্লাগবে!
: আমার ভালোলাগা এত ঠুনকো না
- তোমাকে অনেক পরিপক্ক মনে হচ্ছে আজ!
: পরিপক্ক হয়েছি ঘটনাচক্রে
- ব্যাপারটা কিন্তু ভালোই
: বেশি পক্ক হলে কিন্তু পঁচে যায়!
- খোঁটা দিলে!
: মানুষ বদলায় জানতাম
- আমি তো বদলাই নি
: পনের বছরের অস্তিত্বকে ভুলতে পারেন যেখানে, আর আমি তো মাত্র সাতটা দিনের!
- এত নিষ্ঠুর হয়ো না
: একটা অনুরোধ রাখবেন?
- বলেই দেখো
: আমাকে আর নাম ধরে ডাকবেন না
- কেন?  
: সেই অধিকার দিই নি
- এত অহংকার!
: বাস্তবতা!
- ভালো থেকো
: থাকব!



বিভা পোদ্দার
আমি বিভা, পড়ছি নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনায়। টুকটাক বই পড়তে ভালবাসি আর কল্পনার নৌকা ভাসিয়ে দূর সীমানার কোলাহলে মিশে যেতে চাই।