ইতিহাসনামায় আপনাকে স্বাগতম

কবিতাঃবৃষ্টি বিলাস - লিখেছেন - শুভ দেব নাথ


ওহে বনলতা, ছায়াময়ী নির্বিকারীনী
জানি অজানা দিগন্তের পানে হারিয়ে গেছো,
আমার শহরেও জমা পড়ে গেছে তোমার চিত্রপট
তবুও কোনো এক শূন্যতার সকালে যখন ভাবাতুর হয়ে পড়েছি আমি,হয়তো তুমিও!!
আজ হাসি পাচ্ছে ভীষণ,
কাছে আসতে চাইছো হয়তো
কিন্তু তব প্রিয় বাঁধা হয়ে যাবে বাস্তবতার নিষ্ঠুর নির্দয়তার দেয়াল,
আমি জানি তো আমার অনুভূতিগুলো তুমি  একদিন ঠিকই বুঝতে পারবে,সেদিন তো...............থাক !!
রিমঝিম বৃষ্টির সকালেও যখন চায়ের কাপে  চুমুক দিতে যাবি, তখনও ভুলতে পারবি না,
মনে পড়বে আমায় বল্লামতো, দেইখো!
একটা কথা আমার পঞ্চইন্দ্রিয়কে নাড়া দিচ্ছে নির্দ্বিধায়,

 তুই প্রায়শই বলতিস,
"তোমার মত আর ক'জনা আছে বলো,তুমি তো পূর্ণ..তব তোমার কীসের হাহাকার,বক্ষে কেন এত রিক্ততার সুর.."
আমি তোমার নরম গালে চুম্বন দিয়ে নানান কথার ঝুরি পাড়তাম,
তুমি হয়তো বুঝতে,আর হয় নাই বুঝতে!!
নতুবা ভাবতে তোমার জগতে আমায় নিয়ে,
আমার ছিলো মধ্যবিত্তের ন্যায় হাজারো চিন্তা, তা নিয়ে তুমি মিটিমিটি হাসতে..
তোমার এ হাসি কেন জানি আমায় ভাবাতো অনেকক,,ভাবাতুর হতাম এ রাজকন্যাকে নিয়ে, হারিয়ে ফেলতে যাচ্ছি না তো...

"এ অস্ফুট, তরুণ, অব্যক্ত নগরীর মানুষদের দিশেহারা ধ্যান,
চিন্তায় কালপরিক্রমায় জড়িয়ে পড়েছো তুমি নির্জন আমির আমিত্ব ভাবনায়"..
প্রতিক্ষণে মনে হতো এই বুঝি হারিয়ে ফেলবো তোমায়,
পরক্ষণেই নিজেকে সামলে নিয়ে বলতাম নিজেকে,আরেকটু অপেক্ষা কর..
   
নিয়তির হেঁয়ালিপনায় স্মৃতির মোহডোরে হয়তো একদিন অবগাহিত হতে চাইবে,
অনেক খুঁজবি আমায় দিনভর এক বৃষ্টিস্নাত সকালে, কিন্তু সেদিনতো!!
বলতে খুব কষ্ট হচ্ছে, ভীষণ ভীষণ কষ্ট হচ্ছে,
এক জন্মে কি সব কথা যায় রে বলা,
তবুও না হয় বলি সেদিনতো,
লুকোচুরি খেলবো আমি সাদা মেঘের ভেলায়,
আর তুমি অবাক চাহনিতে খুঁজবে আমায় নীল আকাশের পানে।


+লেখক: শুভ দেব নাথ
শত কোটি প্রাণের জনসমুদ্র কল্লোলে যেমনি সেবার জন্যে ডাক্তারি পেশার মত মহৎ পেশায় নিজেকে অমোঘ অস্ত্রের ন্যায় করতে চেয়েছি সমর্পিত, ঠিক তেমনি- স্বকীয় আত্মার অবলম্বন হিসেবে বেছে নিয়েছি কবিতাকে।
ফেসবুক লিংক:আইডি লিংক